information- Technology

মোবাইল নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড নাম্বার বের করার নিয়ম

একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে জন্ম নিবন্ধন কার্ড ও ভোটার আইডি কার্ড তথ্যগুলো সংগ্রহ করে রাখা অত্যন্ত জরুরী। ভোটার আইডি নাম্বার যদি আপনার তাৎক্ষণিকভাবে মনে না থাকে তাহলে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় নাম্বার বের করতে পারবেন। এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো জানার জন্য অবশ্যই সঠিক নিয়ম কানুন মানতে হবে। বর্তমান সময়ে লক্ষ্য করে দেখবেন প্রতিটি সিম কোম্পানি অপারেটর ভোটার আইডি নিবন্ধন করে থাকে তাই সিম রেজিস্ট্রেশন করার জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ কাজ হলো জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার জানা।

বাংলাদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কলকারখানা, যে কোনো প্রতিষ্ঠানে জব করতে যান জাতীয় পরিচয় পত্র অবশ্যই থাকতে হবে। মানুষকে সনাক্ত করার জন্য আইডি কার্ড একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি। আপনাকে কোন মানুষ বিরক্ত করতেছেন অথবা হুমকি প্রদান করেছে সেই মানুষটিকে সঠিকভাবে শনাক্ত করতে পারবেন আইডি কার্ড দেখে।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করা

প্রতিদিন অসংখ্য ভিজিটর আমাদের সাথে যোগাযোগ করে জানতে চেয়েছে, কিভাবে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করা সম্ভব। এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে আজকে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে জাতীয় পরিচয় পত্র মোবাইল নাম্বার দিয়ে বের করার সঠিক নিয়ম কানুন গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি। জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার নিজের মোবাইল থেকে খুব সহজে বের করতে পারবেন তার জন্য বিস্তারিত তথ্য গুলো নিজ দায়িত্বে জেনে নিবেন।

অকারনে কোন প্রকার খারাপ অ্যাপস কিংবা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির কাছে জাতীয় পরিচয় পত্রের গোপনীয়তা বিষয়গুলো শেয়ার করবেন না। আপনি যখন কোন কোম্পানির কাছে আপনাদের সাথে শেয়ার করবেন ফোন সিম কোম্পানি আপনার ব্যক্তিগত গোপনীয়তার গুলো বিষয় গুলো কারো সাথে শেয়ার করবে না কিন্তু যখন আপনি অসাধু কোন কোম্পানি বা অ্যাপস এর সাথে জাতীয় পরিচয় পত্র তথ্য গুলো শেয়ার করবেন। তখন এই তথ্যগুলো নিয়ে আপনার ক্ষতি করতে পারে। তাই এ বিষয়টি খুব সচেতন থাকবেন কোথায় আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম্বার ব্যবহার করবেন এই বিষয়গুলোতে।

ফরম নম্বর দিয়ে আইডি কার্ড নাম্বার বের করার সহজ নিয়ম

পাঁচ থেকে ছয় বছর আগে জাতীয় পরিচয় পত্র সকল তথ্য দিয়ে ফর্ম ফিলআপ করেছেন কিন্তু এখন পর্যন্ত আইডি কার্ড হাতে পাননি। এমনতো অবস্থায় আপনার আইডি কার্ডটি যদি তে না থাকেন তাহলে অবশ্যই অনলাইন থেকে আইডি কার্ড এর পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন, যত দিন পর্যন্ত আপনার হাতের নির্ধারিত সরকারের মাধ্যমে আইডি কার্ড পৌঁছাতে সক্ষম হবে না। ততদিন পর্যন্ত নিজের প্রয়োজনে সব জায়গায় এই অনলাইন আইডি কার্ডটি ব্যবহার করতে পারবেন। আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে আমরা কিছু ধাপসমূহ প্রদান করব। আশা করি জিনিস সঠিকভাবে বুঝতে পারলে খুব সহজে ফরম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করতে পারবেন।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে কিভাবে আইডি কার্ড নাম্বার বের করবেন

নির্বাচন চলাকালীন সময়ে নির্বাচন অফিসে ভোটার আইডি কার্ড সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে গেলে বেশিরভাগ সময়ে সমাধান করতে করে দিতে চায় না এবং অধিক সময় নেয়। ঘরে বসে খুব সহজেই নিজের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন ব্যবহার করে ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার ও সকল তথ্যগুলো সংগ্রহ করতে পারবেন। যদি কাউকে ব্যক্তিগত’ আক্রমণ করেন অথবা বিরক্ত করেন সেক্ষেত্রে সাইবার ক্রাইম টিম আপনার ব্যক্তিগত তথ্য গুলো সহায়তা নিতে পারে। এছাড়া সাধারণ পুলিশ তাদের ব্যক্তিগত প্রয়োজনে সিম কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করে অনেক তথ্য সংগ্রহ করে রাখে। মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র থেকে শুরু করে অনেকগুলো ব্যক্তিকে একসাথে ট্রাক হতে পারবেন। সবসময় মনে রাখবেন নিজের সঠিক থাকবেন ও সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করবেন।

প্রত্যেক বাংলাদেশের ছেলে মেয়ের বয়স যখন 18 হবে তখন এই বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে গণ্য করা হবে এবং ন্যাশনাল আইডি ব্যবহার করার সুযোগ পাবে । টেকনিক্যাল ত্রুটি ও কোন ঝামেলার কারণে অনেক সময় নিজের আইডি কার্ড হাতে পেতে অনেক সময় লাগে। দেশের সর্বোচ্চ সুবিধা পেতে হলে ন্যাশনাল আইডি কার্ড এর বহুরূপী গুরুত্ব অপরিসীম।

ইউএসএসডি কোড ডায়াল করে ন্যাশনাল আইডি বের করার নিয়ম

কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়া খুব সিম্পলি মোবাইল অপশনে গিয়ে ইউএসএসডি কোড ডায়াল করে ভোটার আইডি কার্ড বের করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে শুধু একটি ডায়াল কোড জানতে হবে তাহলে কোন প্রকার বিভ্রান্ত ও ঝামেলা ছাড়ায় ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার দেখতে পারবেন। ভোটার আইডির নাম্বার ছাড়া অন্য কোনো তথ্য নিতে পারবেন না শুধুমাত্র ভোটার আইডি জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার টুকু দেখতে পারবেন এবং সিমটি উত্তোলন করতে পারবেন।

ভোটার আইডি নাম্বার জানতে আপনার মোবাইল অপশনে গিয়ে ডায়াল করুন স্টার *1600#। ডায়াল করলে কিছু অপশন দেখাবে step-by-step সবকিছু কমপ্লিট করলে আপনি জাতীয় পরিচয় পত্র রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেলে ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বারটি খুব সহজে আপনার মোবাইলের স্ক্রিনে দেখতে পারবেন। এভাবেই খুব সহজেই জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার বের করা যাবে।

Rahat Ali

I'm Rahat Ali here with you. I write about Informative content. If you are looking for Education, Travel, Telecom, official contact info of any Company, Organization, or Person, let's read my content on this website.
Back to top button
Close