Skip to content

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, ভাড়া, স্টপ স্টেশন, অনলাইন টিকেট

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, ভাড়া, স্টপ স্টেশন, অনলাইন টিকেট

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা আশা করি ভাল আছেন। উত্তরাঞ্চলে যাতায়াতের অন্যতম মাধ্যম দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন। এটি আরামদায়ক ভ্রমণের নিশ্চয়তা প্রদান করে। নিয়মিত যাত্রীদের উত্তর অঞ্চলে যাতায়াত করতে দুটি ট্রেন সচল থাকে একটি দ্রুতযান অন্যটি একতা এক্সপ্রেস। এটি একটি আন্তঃনগর ট্রেন। নিয়মিত উত্তরাঞ্চলে যাতায়াতকারীদের জন্য এই ট্রেনের সময়সূচী ভাড়া এবং বন্ধ থাকার দিন ও অনলাইনে টিকেট নিশ্চিত করার উপায় গুলো নিয়ে আলোচনা করব এই আর্টিকেলে। আপনি যদি দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য পেতে চান তবে আসুন এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জেনে নেই।

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

উত্তর অঞ্চলে চলাচল কারি আধুনিক ট্রেন এটি। আন্তঃনগর ট্রেনটি ঢাকা থেকে পঞ্চগড়ের সীমানা পর্যন্ত চলাচল করে। গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি স্টেশনে বিরতি দেয় এই ট্রেন। আপনি যদি এটিতে করে ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলের যাত্রী হতে চান অথবা উত্তরাঞ্চল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করতে চান তবে এই ট্রেনের সঠিক সময়সূচী জানতে হবে। আসুন তাহলে জেনে নি ন দ্রুতযান এক্সপ্রেস কখন কোথায় থেকে যাত্রা করে। কখন কোথায় বিরতি দেয়। গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন গুলিতে কখন পৌঁছে জেনে নিই।

স্টেশন ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ঢাকা টু পঞ্চগড় নাই ০৭ঃ০০ ১৮ঃ১০
পঞ্চগড় টু ঢাকা নাই ০৮ঃ০০ ১৮ঃ৩৫

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন ভাড়া

উত্তরবঙ্গের চলাচল কারি আধুনিক আন্তঃনগর ট্রেন এটি। নিয়মিত হাজার হাজার যাত্রী ঢাকার উদ্দেশ্যে উত্তরবঙ্গ থেকে যাত্রা করে। এবং প্রতিদিনই ঢাকা থেকে যাত্রীরা উত্তরাঞ্চলে আসেন এই ট্রেনে করে। এতে কয়েক প্রকার সিট রয়েছে আলাদা আলাদা মানের। খুব বেশি একটা দাম নয় এই ট্রেনের টিকেটের। কয়েক প্রকার সিটের মধ্যে উল্লেখযোগ্য: শোভন, শোভন চেয়ার, প্রথম সিট, প্রথম বার্থ, স্নিগ্ধা, এসি সিট ,ইসি বার্থ ইত্যাদি আলাদা আলাদা ভিআইপি এবং নরমাল মানের সিট রয়েছে। এসবের ভাড়া মূল্য আলাদা আলাদা। তাই আপনি প্রত্যেকটি বিভাগের ভাড়ার তালিকা জেনে নিন আমাদের আর্টিকেল থেকে।

আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য (১৫%ভ্যাট)
শোভন ৩৯০ টাকা
শোভন চেয়ার ৫৬৫ টাকা
প্রথম সিট ৬২০ টাকা
প্রথম বার্থ ৯৩০ টাকা
স্নিগ্ধা ৭৭৫ টাকা
এসি সিট ৯৩০  টাকা
এসি বার্থ ১৩৯০ টাকা

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের স্টপেজ

যাত্রাপথে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে সাময়িক বিরতি দেয় এই ট্রেন। ট্রেন যেহেতু নিয়ম মাসিক চলাচল করে সেহেতু আপনি কোন এলাকাতে নামতে চান সেই এলাকাতে ট্রেনটি বিরতি দিবে কিনা তা জানতে হবে। তাহলে আসুন জেনে নেই এই আন্তঃনগর ট্রেনটি কোন কোন স্টেশনে বিরতি দেয়।

  • বিমানবন্দর স্টেশন
  • জয়দেবপুরে
  • যমুনা ব্রিজের পূর্বদিকে
  • যমুনা ব্রিজের পশ্চিমে
  • ইশ্বরদী বাইপাস
  • নাটোর
  • সান্তাহার
  • আক্কেলপুর
  • জয়পুরহাট
  • পাঁচবিবি
  • বিরামপুর
  • ফুলবাড়ি
  • পার্বতীপুর
  • চিরিবন্দর
  • দিনাজপুর
  • সেতাবগঞ্জ
  • পীরগঞ্জ
  • ঠাকুরগাঁও
  • রুহিলা
  • পঞ্চগড়

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের অফ ডে

নিয়মিত চলাচলকারী আন্তঃনগর ট্রেন হিসেবে পরিচিত দ্রুতযান এক্সপ্রেস। উত্তরাঞ্চলে চলাচলকারী আরো একটি ট্রেন রয়েছে যার নাম একতা এক্সপ্রেস। আমরা কথা বলছি দ্রুতযান এক্সপ্রেস এর যাবতীয় দিক নিয়ে। সপ্তাহের যে সকল দিনে এই ট্রেন যাতায়াত করে এবং যে সকল দিন যাতায়াত বন্ধ রাখে তা জানিয়ে দিব এখন।

স্টেশন ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ঢাকা টু পঞ্চগড় নাই ০৭ঃ০০ ১৮ঃ১০
পঞ্চগড় টু ঢাকা নাই ০৮ঃ০০ ১৮ঃ৩৫

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের অনলাইন টিকিট বুকিং

সশরীরে টিকিট ক্রয়ের থেকে অনলাইনে টিকেট ক্রয়ের জনপ্রিয়তা বেড়েছে আগের থেকে অনেক গুণ বেশি। বাংলাদেশ রেলওয়ে ওয়েবসাইট থেকে টিকেট বুকিং দেয়া যায়। এছাড়াও বর্তমান সময়ে এন্ড্রয়েড মোবাইলে অ্যাপস এর মাধ্যমে টিকেট বুকিং দেয়ার সিস্টেম রয়েছে। প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ অনলাইনে টিকিট বুকিং দিচ্ছে দ্রুতযান এক্সপ্রেসের। উত্তরাঞ্চলে চলাচলকারী এই ট্রেনটি যাত্রী সেবা প্রদানে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে। অনলাইন টিকেট বুকিং সিস্টেম থাকায় যাত্রীরা ঘরে বসেই আরামদায়ক যাত্রার সুযোগ লাভ করছে।

বাংলাদেশের প্রধান যাতায়াত মাধ্যম হিসেবে প্রাচীনকাল থেকেই ট্রেন চলাচল জনপ্রিয়। পূর্বের যুগের কয়লা ট্রেন থেকে জ্বালানি ট্রেন বর্তমান সময়ের আধুনিক ট্রেন পর্যন্ত বহু বছরের ঐতিহ্য রেল ব্যবস্থা। তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগেও সংযোজন ঘটেছে ট্রেন যোগাযোগ। প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষ রেলযোগে যাতায়াত করে থাকে। এর ঐ অংশ হিসেবে উত্তরাঞ্চলে যাতায়াত করার জন্য দ্রুতযান এক্সপ্রেস বহু বছর থেকে সুনামের সাথে যাত্রী সেবা করছে। এই ট্রেনটির যাবতীয় তথ্য নিয়ে আলোচনা করেছি এই আর্টিকেলে। আপনি যদি এই ট্রেনে করে উত্তর অঞ্চল থেকে ঢাকা অথবা ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলে যাতায়াত করতে চান তবে প্রয়োজনে সকল তথ্য পাবেন এই আর্টিকেলে। আশা করছি আপনি উপকৃত হয়েছেন।

Comment Here