Skip to content

অনলাইনে বাংলাদেশের জমির দলিল বের করার নিয়ম www.land.gov.bd

অনলাইনে বাংলাদেশের জমির দলিল বের করার নিয়ম www.land.gov.bd

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা আশা করি ভাল আছেন। প্রতিনিয়তই আপনার এলাকার আশেপাশে জমির বিরোধ সংক্রান্ত বিষয় দেখতে পান। এই ঝামেলা গুলো সাধারণত জমির দলিল না থাকা অথবা জমির দলিল বের করার নিয়ম না জানা থাকার কারণেই ঘটে থাকে। সরকারিভাবে জমির দলিল বের করার জন্য ভূমি অফিসে যোগাযোগ করতে হয়। এক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা ও ভূমি অফিসে দৌড়ঝাঁপ করতে হয়। বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে অনলাইনে জমির দলিল বের করা সুবিধা প্রদান করছে সরকার। আপনি যদি জমির দলিল দেখতে চান তবে অনলাইনে সুনির্দিষ্ট কিছু নিয়ম ফলো করে বের করতে পারবেন। আসুন তাহলে জেনে নেই কিভাবে অনলাইনে আপনার জমির দলিল বের করবেন।

জমির দলিল কি?

বর্তমানে দেশকে ডিজিটালাইজড করার প্রত্যয়কে সামনে রেখে জমির দলিল বের করার সহজ নিয়ম তৈরি হয়েছে। জমির দলিল হল জমির দাগ নম্বর খতিয়ান নম্বরসহ উল্লেখিত জমির মালিকানার সার্টিফিকেট। উল্লিখিত জমির পরিমাণ খতিয়ান ও দাগ নম্বর সহ আপনি যে জমি ক্রয় করেছেন তার উপর আপনার নাম ঠিকানা সহ সার্টিফিকেট প্রদান করে ভূমি অফিস। এই সার্টিফিকেট কেই জমির দলিল বলা হয়। জমির উপর ক্রয় বিক্রয়, কর, খাজনা পরিশোধ করে নির্ধারিত দাগের উপর সরকারি স্ট্যাম্প এর ওপর আপনার নামে দেয়া কাগজকেই দলিল বলে।

জমির দলিলের প্রয়োজনীয়তা

আপনি যদি জমি ক্রয় করে থাকেন তবে অবশ্যই জমির দলিল থাকতে হবে। এই দলিলে আপনার ক্রয় কৃত জমির পরিমাণ দাগ নম্বর মৌজা সহ বিস্তারিত বিষয় উল্লেখ থাকবে। আপনি যে জমির মালিক তা প্রমাণের জন্য অবশ্যই দলিল থাকতে হবে নতুবা যে কেউ সেই জমি ভোগ করতে পারবে অথবা সেই জমিতে মালিকানা বা ভাগ বসাতে জোর জবরদস্তি করতে আসবে। আপনি নিশ্চয়ই এই ঝামেলার চান না। অতএব আপনাকে ঝামেলা মুক্ত মালিকানাধীন জমি ভোগ করতে অবশ্যই দলিল প্রয়োজন।

অনলাইনে খতিয়ান দলিল বের করার নিয়ম

আপনি নিশ্চয়ই জমির দলিলের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করেই অনলাইনে দলিল বের করার নিয়ম জানতে এসেছেন। আমরা তাই আপনাকে জানিয়ে দিব পর্যায়ক্রমে কিভাবে অনলাইন প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আপনার নামে প্রকৃত জমির বিস্তারিত তথ্য পাওয়ার উপায়। আর এভাবেই সহজেই আপনার জমি সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ তথ্য পেয়ে যাবেন অনলাইনে। ভূমি অফিস থেকে দলিল বের করার জন্য আপনাকে দীর্ঘ সময় নিয়ম অনুসারে অপেক্ষা করতে হবে। বিভিন্ন কাগজপত্র ভূমি অফিসে জমা দেখাতে হবে। খাজনা খারিজ পরিষদ পত্র ঠিক থাকতে হবে। এমত অবস্থায় যদি আপনার জমি নিয়ে বিরোধ দেখা দেয় সেক্ষেত্রে প্রমাণস্বরূপ অনলাইন থেকে বের করা দলিল প্রদর্শন করতে পারেন। তবে আসুন জেনে নেই অনলাইন থেকে কিভাবে খতিয়ান দলিল বের করতে হয়।

  • জমির আর এস খতিয়ান দেখতে প্রথমত আপনাকে এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন বা ল্যাপটপের মাধ্যমে ইন্টারনেট কানেকশন দিয়ে www.land.govbd এই ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করুন।
  • এই ওয়েব সাইটে যাওয়ার পর আপনার সামনে একটি ইন্টারফেস আসবে সেখান থেকে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় অপশনটিতে অর্থাৎ ভূমি মন্ত্রণালয় অপশনটিতে ক্লিক করুন এবং সেখানে প্রবেশ করুন।
  • এবার আপনি লক্ষ্য করুন আপনার সামনে সামনে অনেকগুলো অপশন এসেছে সেখান থেকে আপনার প্রয়োজন মত অপশনটি অর্থাৎ খতিয়ান নামক অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং ক্লিক করুন।
  • খতিয়ান এ ক্লিক করার পর আপনার সামনে একটি ইন্টারফেস এসেছে যেখান থেকে জানতে চাওয়া হচ্ছে আপনি কোন ধরনের খতিয়ান দেখতে চাচ্ছেন, এবার আপনি আর এস খতিয়ান অপশন টি ক্লিক করুন।

ডাকযোগে খতিয়ান দলিল পাবার নিয়ম

আপনি যদি ইতিমধ্যে অনলাইনে জমির দলিল বের করার নিয়ম অনুসরণ করে আবেদন করে থাকেন তবে তা হাতে পাওয়ার জন্য ডাক বিভাগকে বেছে নিতে পারেন। ডাকযোগে খতিয়ান দলিল হাতে পাওয়ার জন্য নিচের ফর্মুলা অনুসরণ করুন। এ ক্ষেত্রে আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল প্রয়োজন হবে। আর মোবাইল ব্যবহার করে সফটওয়্যার এর মাধ্যমে বাকি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। আসুন তাহলে জেনে নিই ডাকযোগে খতিয়ান দলিল হাতে পাওয়ার পদ্ধতি।

জমির দলিলের নকল পাওয়ার পদ্ধতি

সাধারণত জমির আসল দলিল সব জায়গায় বের করা নিরাপদ নয়। অর্থাৎ জমির আসল দলিল হাত বদল হলে আপনি বিশাল ঝামেলায় পড়তে পারেন। সে ক্ষেত্রে আপনি জমির মালিকানা দাবি করার মতো অধিকার থেকেও ঝামেলায় পড়বেন। এজন্য আপনার জন্য নিরাপদ হল আসল দলিলের বিপরীতে নকল দলিল হাতে রাখা অথবা ফটোকপি করে রাখা। এই নকল দলিল ভূমি অফিস থেকে পেতে কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করতে হয়। জমির দলিল অনলাইনে পাওয়ার সহজ পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করেছি আশা করছি উপকৃত হবেন।

Comment Here